https://ratdin.news
শেকড়ের খবর সবার আগে...

আদিতমারীর নিঃস্ব সেই পরিবারের পাশে মন্ত্রীপুত্র

মদন মোহন রায়। পেশায় কৃষিশ্রমিক। অন্যের জমিতে কাজ করে যা আয় হয় তাই দিয়েই চলে দুই ছেলে মিলে চারজনের সংসার। আসছে সনাতন ধর্মাম্বলীদের সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপূজা। কিন্তু পূজার জন্য কেনাকাটা করার সামর্থ্য নেই তার। তাই কয়েকদিন আগে পরিবারটির জন্য নতুন কাপড় দিয়ে যান ভাই।

কিন্তু পূজার সেই নতুন কাপড়সহ পুড়ে গেছে তার বাড়ির সবকিছু। পুড়েছে ধান, চাল ও আসবাবপত্র। পরণের কাপড় ছাড়া কিছুই রক্ষা করতে পারেনি পরিবারের লোকজন। লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের মসুর দৈলজোর গ্রামে মদন মোহর রায়ের বাড়ি।

গত বৃহস্পতিবার, ১৫ অক্টোবর রাতে বিদ্যুতের শর্টসার্কিট থেকে ঘটা অগ্নিকান্ডে পুড়ে যায় ওই দিনমজুরের বসতবাড়ি। দুইটি ঘরের মধ্যে একটি সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে, অপরটি আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

মদন মোহন রায়ের এই কষ্টের কথা ওই দিনই তুলে ধরে রাতদিননিউজ। খবরটি নজরে আসে সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের ছেলে ও তরুণ রাজনীতিক রাকিবুজ্জামান আহমেদের। ফলে তিনি পাশে দাঁড়িয়েছেন নিঃস্ব পরিবারটির।

রাকিবুজ্জামান আহমেদের পক্ষ থেকে আজ শনিবার, ১৭ অক্টোবর বিকেলে ক্ষতিগ্রস্থ দিনমজুর মদন মোহন রায়ের বাড়িতে গিয়ে আপাতত সংসারের খরচ ও দুর্গাপূজার জন্য ১৫ হাজার টাকা তুলে দিয়েছেন আদিতমারী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম ও সারপুকুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম প্রধান।

রফিকুল আলম বলেন, ‘অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ দরিদ্র পরিবারটির জন্য আমাদের মাধ্যমে অর্থ সহায়তা পাঠিয়েছেন রাকিবুজ্জামান। এছাড়া তাকে একটি নতুন ঘরও তৈরি করে দিবেন মন্ত্রীপুত্র’।

উৎফুল্ল মহন মোহন রায় বলেন, ‘দিনমজুরী করে সংসার চালাই। এই অবস্থায় আগুন আমাদের সব কেড়ে নিয়ে নিঃস্ব করে দিয়েছে। ঠিক আমরা যখন অসহায়ের মতো পড়ে আছি তখনই না চাইতেই আমাদের পাশে দাঁড়ালেন মন্ত্রী মহোদয়ের ছেলে। যতদিন বেঁচে থাকবো তার জন্য দোয়া করবো’।

রাতদিননিউজকে ধন্যবাদ জানিয়ে রাকিবুজ্জামান আহমেদ বলেন, ‘অঁজোপাড়াগাঁয়ের একজন দিনমজুরের কষ্টগাঁথা তুলে ধরার কারণেই বিষয়টি আমার নজরে আসে। ফলে মানবিক দিক বিবেচনায় ওই পরিবারটির পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি। ভব্যিষ্যতেও আমি মানুষের জন্য কাজ করবো’।

সারপুকুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম প্রধান বলেন, ‘আমরা ইউনিয়ন পরিষদ থেকেও পরিবারটিকে সহায়তার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছি’।

অর্থ সহায়তা প্রদানকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আদিতমারী প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরহাদ আলম সুমন, সাপ্টিবাড়ি ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক কৃষিবিদ হযরত আলী, নামুড়ি মহাবিদ্যালয়ের প্রভাষক সাদিকুল ইসলাম খাঁন ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাঈদুল বাবু।

এবি/রাতদিন

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে

Follow by Email