https://ratdin.news
শেকড়ের খবর সবার আগে...

একই সময়ে খুলনায় উল্টে গেল, সিলেটে রেলিংয়ে উঠলো গ্রীন লাইনের বাস

তথ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাবাহী গ্রীন লাইনের একটি বাস খুলনায় রূপসা সেতুর টোল প্লাজার সড়ক বিভাজকের সঙ্গে ধাক্কা লেগে উল্টে গেছে । আজ  বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ভোর ৫টার দিকে বাসটি এই দুর্ঘটনায় পড়ে।

এদিকে একইদিন ও একই সময়ে গ্রীন লাইন পরিবহনের অপর একটি বাস ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের দক্ষিণ সুরমা রশীদপুরে দুর্ঘটনা কবলে পড়েছে।

খুলনা : রূপসা সেতুর টোল প্লাজার সড়ক বিভাজকের সঙ্গে ধাক্কা লেগে উল্টে গেছে তথ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাবাহী গ্রীন লাইনের একটি বাস। এ ঘটনায় পাঁচজন আহত হয়েছেন।

আজ  বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে রূপসা সেতুর পশ্চিম পাশে বাসটি এই দুর্ঘটনায় পড়ে।

বাসটিতে তথ্য মন্ত্রণালয়ের ২৫ জন কর্মকর্তা ছিলেন। বুধবার দিবাগত রাতে ঢাকা থেকে কর্মকর্তাদের নিয়ে প্রশিক্ষণের জন্য খুলনায় রওনা হয় বাসটি।

দুর্ঘটনাকবলিত বাসের যাত্রীরা অভিযোগ করেছেন, বাসের চালক চোখে ঘুম নিয়েই গাড়ি চালাচ্ছিলেন।

খুলনার রূপসা সেতুর পশ্চিম দিকের একটি ডিভাইডারের সঙ্গে ধাক্কা লেগে উল্টে যায়। এতে বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি না হলেও চার কর্মকর্তা আহত হয়েছেন। এছাড়া বাসের হেলপারও আহত হয়েছেন। আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

গণযোগাযোগ অধিদফতরের ১৪ জন, জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউশনের ৯ জন ও তথ্য অধিদফতরের ২ জনকে নিয়ে বাসটি ঢাকা থেকে খুলনায় যাচ্ছিল।

পরে দুর্ঘটনাকবলিত বাসটি উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর থেকে চালক পলাতক রয়েছেন।

সিলেট : ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা গ্রীন লাইন পরিবহনের অপর একটি এসি বাস ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের দক্ষিণ সুরমা রশীদপুরে দুর্ঘটনা কবলে পড়েছে। বৃহস্পতিবার ভোরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুই যাত্রী আহত হয়েছেন। তাদেরকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, গ্রীন লাইন পরিবহনেরর এসি বাসটি বুধবার দিবাগত রাত ১২টা ৫ মিনিটে ঢাকা থেকে যাত্রীদের নিয়ে সিলেটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে সিলেটের রশীদপুরে পৌঁছামাাত্রই ওই বাসের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ব্রিজের রেলিংয়ের ওপর তুলে দেন। এতে ব্রিজের রেলিং ভেঙে যায় এবং বাসটির সামনের নিচের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরবর্তীতে বাসে থাকা অনেক যাত্রী বাসের গ্লাস ভেঙে বের হন। আর বাসের সামনে থাকা দুইজন যাত্রী গুরুতর আহত হন।

দুর্ঘটনা কবলিত ওই বাসের পেছনে থাকা আরেকটি বাসের যাত্রী ব্যাংক কর্মকর্তা আজিজুল ইসলাম জানান, তিনি রাত ১২টা ২০ মিনিটের সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা একটি বাসের যাত্রী ছিলেন। রশীদপুরে এসে দেখতে পান গ্রীন লাইন পরিবহনের বাসটি দুর্ঘটনায় পতিত হয়েছে। এ সময় যাত্রীরা বাসের গ্লাস ভেঙে বের হন।

এবি/রাতদিন

ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে