https://ratdin.news
শেকড়ের খবর সবার আগে...

ওসি মোয়াজ্জেমের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা, বিভিন্ন সীমান্তে সতর্কতা

মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় আদালতের পরোয়ানাভুক্ত ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেমের দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

সীমান্ত অতিক্রম করে তিনি যেন ভারতে পালিয়ে না যেতে পারে সেজন্য সীমান্ত এলাকায় পুলিশ ও বিজিবির পক্ষ থেকে বাড়তি সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার, ১২ জুন এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা বিভিন্ন চেকপোস্ট ও ইমিগ্রেশনে পৌঁছেছে বলে গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে।

যশোরের বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ওসি আবুল বাশার জানান, গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির পর ওসি মোয়াজ্জেম যাতে সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতে পালিয়ে না যেতে পারে সেজন্য তারা সতর্ক রয়েছেন।

এদিকে হিলি ইমিগ্রেশনের ওসি ফিরোজ কবির সাংবাদিকদের জানান, ‘সোনাগাজীর সাবেক ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির পরই পুলিশের হেডকোর্য়াটার থেকে জেলা পুলিশ সুপারের মাধ্যমে আমাদের কাছে ওসি মোয়াজ্জেমের পাসপোর্ট নম্বর দেয়া হয়েছে। তিনি যাতে ভারতে যেতে না পারেন সে বিষয়ে তারা সতর্ক রয়েছেন।’

কুমিল্লা স্থলবন্দর পুলিশের এসআই নকুল কুমার বিশ্বাস বলেন, ওসি মোয়াজ্জেমের বিষয়ে রাষ্ট্রের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দেশের সব ইমিগ্রেশন পুলিশের মতো আমরাও বাড়তি সতর্ক অবস্থানে রয়েছি। কুমিল্লা স্থলবন্দর এলাকা দিয়ে ওসি মোয়াজ্জেমকে দেশত্যাগ করার কোনো সুযোগ দেয়া হবে না।

উল্লেখ্য, ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে তার মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে গত ২৭ মার্চ সোনাগাজী থানায় সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলার বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর অধ্যক্ষকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের নামে নুসরাতের বক্তব্য ভিডিও করেন ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন।

পরে সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়েও দেন তিনি। ভিডিও করে তা ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে গত ১৫ এপ্রিল ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালে একটি মামলা দায়ের করেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন।

বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ ও মামলার নথি পর্যালোচনা করে ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেন গত ২৭ মে ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন।

এদিকে পুলিশ সদর দফতরের তদন্ত প্রতিবেদনের সুপারিশ অনুযায়ী, গত ৮ মে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। মে মাসের তৃতীয় সপ্তাহে তিনি রংপুর রেঞ্জ অফিসে যোগ দেন। যদিও সেই ভিডিও তার মোবাইল থেকে চুরি করেছে এমন অভিযোগ এনে সময় টিভির ফেনীর স্থানীয় রিপোর্টার আতিয়ার হাওলাদার সজলের বিরুদ্ধে গত ১৪ মে সোনাগাজী মডেল থানায় মোয়াজ্জেম হোসেন বাদী হয়ে জিডি করেছিলেন। পরে সজলও তার বিরুদ্ধে ফেনী মডেল থানায় একটি জিডি করেছিলেন।

এর আগে গত ৬ এপ্রিল এইচএসসি সমমানের আলিম আরবি প্রথমপত্রের পরীক্ষা দিতে গেলে দুর্বৃত্তরা নুসরাত জাহান রাফিকে ছাদে ডেকে নিয়ে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে গত ১০ এপ্রিল নুসরাত মারা যান।

এ ঘটনায় নুসরাতের বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান বাদী হয়ে অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলাসহ ৮ জনের নাম উল্লেখ করে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। ১০এপ্রিল মামলাটি তদন্তের জন্য পিবিআইকে দায়িত্ব দেন আদালত।

এইচএ/রাতদিন

ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে