https://ratdin.news
শেকড়ের খবর সবার আগে...

করোনাভাইরাসকে ‘ছাড় দিতে নারাজ’ ভুটান

গণস্বাস্থ্য কর্মসূচিকে যেন রাস্তার ধারে নামিয়ে এনে কোভিড-১৯ বা করোনাভাইরাস মোকাবেলায় নেমেছে ড্রাগনভূমি খ্যাত ভুটান। করোনাভাইরাসে মৃত্যুপুরী চিনেরই গায়ে লেপটে থাকা ছোট্ট ভুটানের লড়াই এমনই। খোদ প্রধানমন্ত্রী রাস্তায় দাঁড়িয়ে জীবাণু নাশক বিলি করছেন। আর প্রতিবেশী ভারত ও বাংলাদেশে সেই জীবাণু নাশক ও মাস্কের দাম ক্রমেই বাড়ছে। অথচ ভুটানে সরকারি উদ্যোগে তেমন কিছু হয়নি।

ছবি: সংগৃহীত

কী করছে  ভুটান?

ভারতের অতি ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশি তথা পশ্চিমবঙ্গের সীমান্ত লাগোয়া ভুটান রাতের পর রাত ধরে তৈরি করছে মোবাইল চিকিৎসা কেন্দ্র। ছোট হাসপাতাল, তাঁবুতে পরীক্ষা শিবির। সরকারি ও রাজ নির্দেশে প্রতিজনকে করোনাভাইরাস পরীক্ষার আওতায় আনা হয়েছে। মাস্ক ও জীবাণুনাশক বিলি করা হচ্ছে সরকারি উদ্যোগে।

প্রবল নিয়মানুবর্তিতা ও গণস্বাস্থ্য কর্মসূচিতে জোর দেওয়ায় আজ বৃহস্পতিবার, ১২ মার্চ পর্যন্ত এই দেশে করোনাভাইরাস সংক্রামিত রোগী মেলেনি। তবে এর আগে সেখানে ঘুরতে আসা এক মার্কিন নাগরিকের দেহে শনাক্ত করা হয় করোনাভাইরাস।

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ড. লোটে শেরিংয়ের দফতর জানিয়েছে, যে সব বিদেশি নাগরিকদের প্রাথমিকভাবে সংক্রামিত রোগী বলে চিহ্নিত করা হয়েছিল তাদের দেহে মেলেনি করোনা জীবাণু।

সূত্র: বিবিএস, কুয়েনসেল ও ডেইলি ভুটান

এবি/রাতদিন

ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন।
Tweet 20

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে