https://ratdin.news
শেকড়ের খবর সবার আগে...

গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালের প্যাথলজি ও বহির্বিভাগ লকডাউন

একজন মেডিকেল টেকনোলজিস্টের (ল্যাব) করোনা শনাক্ত হওয়ায় গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালের প্যাথলজি ও বহির্বিভাগ লকডাউন করা হয়েছে।

বুধবার, ২৯ এপ্রিল সকালে হাসপাতালটির তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. মাহফুজার রহমান সিভিল সার্জনের সঙ্গে পরামর্শ করে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেন।

জানা গেছে, করোনায় আক্রান্ত ওই টেকনোলজিস্টের বাড়ি গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায়।

গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে যারা করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে যেতেন প্যাথলজি বিভাগে তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হতো। পরে এসব নমুনা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মাধ্যমে রংপুর মেডিকেল কলেজের (রমেক) পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হতো।

আর এ কাজে যুক্ত ছিলেন প্যাথলজি বিভাগের ৩ জন মেডিকেল টেকনোলজিস্ট, ১ জন ল্যাব অ্যাটেনডেন্ট ও ১ জন এমএলএসএস। এদের মধ্যে ১ মেডিকেল টেকনোলজিস্ট করোনায় আক্রান্ত হন। এ কারণে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালের প্যাথলজি ও বহির্বিভাগ লকডাউন করা হয়েছে।

গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. মাহফুজার রহমান জানান, আপাতত কয়েকদিন প্যাথলজি ও বহির্বিভাগ বন্ধ থাকবে। প্যাথলজি বিভাগের ৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করে রংপুর মেডিকেল কলেজের ল্যাবে পাঠানো হবে। তাদের নমুনা পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ হলে প্যাথলজি বিভাগ চালু করা হবে। আর যদি এই ৪ জনও করোনায় আক্রান্ত হন তাহলে অনির্দিষ্টকালের জন্য প্যাথলজি বিভাগ বন্ধ থাকবে।

এনএ/রাতিদিন

ভালো লাগলে লাইক দিন।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে

error

নিয়মিত সংবাদের জন্য সাবস্ক্রাইব করুন