https://ratdin.news
শেকড়ের খবর সবার আগে...

দিনে লেখা নিষেধ, রাতে পরীক্ষা দিল ২৮ শিক্ষার্থী

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের ২৮ পরীক্ষার্থী রাতে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। তারা সবাই মুকসুদপুর উপজেলার জলিরপাড় কেলগমুখার্জী সেমিনারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ১৫ জন ছাত্র ও ১৩ ছাত্রী রয়েছে।

গতকাল শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি  রাতে জলিরপাড় জেকেএমবি মল্লিক উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে তারা পরীক্ষা দেয়।

জলিরপাড় কেলগমুখার্জী সেমিনারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক লিটন শ্যামল হালদার জানান, খ্রিস্টান ধর্মীয় বিধানমতে সেভেন্থডে অ্যাডভেন্টিস্টমণ্ডলীভক্তদের শনিবার দিনের বেলায় লেখা নিষেধ।

তাই বোর্ডের অনুমতিক্রমে মুকসুদপুর উপজেলার জলিরপাড় জেকেএমবি মল্লিক উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে তাদের বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এসএসসি পরীক্ষা সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত দেয়।

শনিবার অন্য পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে ওই ২৮ পরীক্ষার্থী সকাল ৯টায় কেন্দ্রে প্রবেশ করে। এ সময় তারা ওই কেন্দ্রের একটি নির্দিষ্ট কক্ষে অবস্থান করে। সন্ধ্যা ৬টায় তাদের পরীক্ষা শুরু হয়। পরীক্ষা শেষে রাত ৯টায় তারা পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে বের হন।

খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীর এক পরীক্ষার্থী জানায়, ধর্মীয় বিধান অনুসারে আমাদের শনিবার দিনের বেলায় কোনো কিছু লেখা নিষেধ রয়েছে। তাই বোর্ডের অনুমতিক্রমে শনিবার রাতে এসএসসি পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ পাই। আগামী ২২ ফেব্রুয়ারির পরীক্ষাও আমরা রাতে দেব।

জলিরপাড় জেকেএমবি মল্লিক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নির্মল সাহা জানান, খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের সেভেন্থডে অ্যাডভেন্টিস্টমণ্ডলীর অনুসারীদের সূর্যের আলো থাকাকালীন সময়ে লেখা নিষেধ। তাই তারা রাতে পরীক্ষা দিয়েছে।

মুকসুদপুর উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার শাহাদৎ হোসেন মোল্লা বলেন, খ্রিস্টান ধর্মের বিধানমতে, তাদের রাতে পরীক্ষা গ্রহণের জন্য বোর্ডের নির্দেশে সব ধরনের ব্যবস্থা করা হয়। সেখানে নকলমুক্ত সুষ্ঠু পরিবেশে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কেন্দ্র সচিব মিনতি বৈদ্য বলেন, ২৯ পরীক্ষার্থীর অংশগ্রহণ করার কথা ছিল। কিন্তু এক ছাত্রী অনুপস্থিত থাকায় ২৮ জন অংশ নেয়। আগামী ২২ ফেব্রুয়ারিও এদের পরীক্ষা রাতে নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

এবি/রাতদিন

ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন।
Tweet 20

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে