https://ratdin.news
শেকড়ের খবর সবার আগে...

ধর্ষণের অভিযোগে গায়েহলুদের আসর থেকে কারাগারে বর

বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় বিয়ের আসর থেকে বরকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন এলাকাবাসী। বরের নাম ইসতিয়াক আহম্মেদ (৩০)। তাঁকে শুক্রবার দুপুরে ধর্ষণের অভিযোগে হওয়া মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে নারায়ণগঞ্জ শহরের দেওভোগ নাগবাড়ি এলাকা থেকে বর ইসতিয়াক আহম্মেদকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি পেশায় ব্যবসায়ী। তাঁর বাড়ি নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার দেওভোগ পশ্চিম নাগবাড়ী এলাকায়।

ধর্ষণের অভিযোগে হওয়া মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শফিকুল ইসলাম বলেন , মামলার বাদী ওই তরুণীর সঙ্গে ৪ বছরের প্রেম ছিল ইসতিয়াকের। বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ওই তরুণীকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন ইসতিয়াক। সর্বশেষ গত বছরের ডিসেম্বর মাসের শেষের দিকে শহরের দেওভোগ নাগবাড়ী এলাকায় নিজের ভাড়া বাড়িতে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করেন ইসতিয়াক। এরপর একাধিকবার বিয়ের কথা বললেও ইসতিয়াক নানা টালবাহানায় বিয়ে না করার পাঁয়তারা করেন। পরে ইসতিয়াকের বিয়ে ঠিক হওয়ার খবর পেয়ে ওই তরুণী ফতুল্লা থানায় এসে ধর্ষণের অভিযোগ মামলা করেন।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম আরও জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে এলাকাবাসী গায়েহলুদের অনুষ্ঠান থেকে ইসতিয়াককে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। এ ঘটনায় ওই তরুণী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতনে আইনে মামলা করেছেন। শুক্রবার দুপুরে ইসতিয়াককে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে

Follow by Email