পাটগ্রামে ট্রেন থেকে পড়ে যাওয়া অজ্ঞাত সেই কিশোর মারা গেছে

0

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী থেকে ছেড়ে আসা সান্তাহারগামী করতোয়া এক্সপ্রেস ট্রেন থেকে পড়ে গুরুতর আহত অজ্ঞাত সেই কিশোর (১৭) মারা গেছে।

আজ রোববার, ১২ সেপ্টেম্বর পাটগ্রাম থেকে সরকারি এ্যাম্বুলেন্স যোগে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (বিকেল ৫ টা) ওই কিশোরের পরিচয় পাওয়া যায়নি।


এর আগে গতকাল বিকেলে চলন্ত ট্রেনে পিলারের সাথে ধাক্কা খেয়ে গুরুতর আহত হন তিনি।

জানা গেছে, গতকাল বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে বুড়িমারী থেকে ছেড়ে আসা ৭১৪ নম্বর করতোয়া এক্সপ্রেস ট্রেনটি পাটগ্রামে আসার সময়  উপজেলার বেলতলী নামক স্থানে একটি পিলারের সাথে বারি খেয়ে ট্রেন থেকে ছিটকে পড়েন ওই কিশোর।

স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে নেয়। মাথায় গুরুতর আঘাতের কারণে আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

আজ রংপুরে নেওয়ার পথে পার্শ্ববর্তী হাতীবান্ধা উপজেলার তিস্তা ব্যারেজের কাছাকাছি পৌঁছানোর আগেই ওই কিশোরের মৃত্যু হয়।

পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার  পরিকল্পনা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, ‘অজ্ঞাত কিশোরটি মাথায় মারাত্মক আঘাত পায়। আজ রমেক হাসপাতালে পাঠনোর পথে সে মারা যায়।

পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক বলেন, ‘অনেক চেষ্টা করেও ওই কিশোরের পরিচয় পাওয়া যায়নি। ময়না তদন্তের জন্য তার লাশ আজ রাববার (১২ সেপ্টেম্বর) লালমনিরহাট মর্গে পাঠানো হচ্ছে।

পরিচয় পাওয়া না গেলে মরদেহ আঞ্জুমানে মুফিদুল ইসলামকে দেওয়া হবে বলে জানান ওসি।

জেএম/রাতদিন

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন
মতামত দিন