পাটগ্রামে নারী কেলেংকারি নিয়ে মুখ খুললেন কাজী

0

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম পৌরসভার কাজী মাওলানা ইউনুস আলী বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের প্রতিবাদ জানিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন। ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের ওই কাজীর বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারির বিষয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানাতে এই সম্মেলন আহ্বান করেন তিনি।

রোববার, ২৮ ফেব্রুয়ারি দুপুরে পাটগ্রাম প্রেস ক্লাবে এই সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এতে তাঁর পক্ষে লিখিত বক্তব্য পড়েন মাওলানা আবুল হোসেন। বক্তব্যে তিনি দাবি করেন- নারী কেলেঙ্কারী সম্পর্কে তাকে জড়িয়ে গত ২৭ ও ২৮ ফেব্রুয়ারি বিভিন্ন গণমাধ্যমে যে সকল সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে তা মিথ্যা, বানোয়াট ও ষড়যন্ত্রমূলক।

তিনি জানান, গত বছরের ১৭ জুন পাটগ্রাম উপজেলার বেংকান্দা গ্রামের এক ব্যক্তি তাঁর (কাজী মাওলানা ইউনুস আলীর) কাজী অফিসের মাধ্যমে তাঁর স্ত্রীকে তালাক দেন। তবে বিবাহকালীন দেনমোহর ৩৫ হাজার টাকার স্থলে সাড়ে ৩ লাখ টাকা দাবী করেন ওই নারী।

তালাকপ্রাপ্ত ওই নারীর দেনমোহর সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও থানা পুলিশের উপস্থিতিতে মীমাংসা করা হয়। একটি মহল অসৎ উদ্দেশ্য হাসিল করার জন্য ওই নারীকে দিয়ে ষড়যন্ত্র করার পাঁয়তারা করছেন বলে সম্মেলনে দাবী করা হয়।

তবে ভুক্তভোগী ওই নারী এই দাবী অস্বীকার করে বলেন, ‘দেনমোহরের বিষয়টি মিথ্যা। ডিভোর্সের কাগজ আনতে গেলে তিনি (কাজী) আমাকে নির্যাতন করেন। পরবর্তীতে বিয়ের করার কথা বলে কাজী আমার সাথে সম্পর্ক স্থাপন করেন।’

জেএম/রাতদিন

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন