https://ratdin.news
শেকড়ের খবর সবার আগে...

প্রেম ও তারুণ্যের কবি হেলাল হাফিজ গুরুতর অসুস্থ

‘এখন যৌবন যার মিছিলে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়, এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’। কিংবা কোনদিন, আচমকা একদিন. ভালোবাসা এসে যদি হুট করে বলে বসে,-. ‘চলো যেদিকে দুচোখ যায় চলে যাই’,. যাবে? এরকম কালোত্তীর্ণ কবিতার কবি, প্রেম ও তারুণ্যের কবি হেলাল হাফিজ। দুঃসংবাদ হলো, গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তিনি।

২১ মে, মঙ্গলবার রাতে দিকে হেলাল হাফিজকে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কবি হেলাল হাফিজের ভাতিজি রিনি সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, ল্যাবএইড হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. শামীম আহমেদের তত্ত্বাবধানে হেলাল হাফিজকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

১৯৪৮ সালে নেত্রকোনায় জন্ম নেওয়া জনপ্রিয় এই কবি দীর্ঘদিন ধরেই চোখ, কিডনি জটিলতাসহ নানা শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন। সম্প্রতি তার জ্বর হয়। সেখান থেকে অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

‘যে জলে আগুন জ্বলে’  কাব্যগ্রন্থের ব্যাপক  জনপ্রিয়তায় বিশ্বজনীন হয়ে ওঠে হেলাল হাফিজের কবিতা।

সামরিক শাসনবিরোধী আন্দোলনের সময়ে দেয়ালে দেয়ালেও উৎকীর্ণ হতে থাকে তার কবিতা- ‘এখন যৌবন যার মিছিলে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’।

৮০-এর দশকে প্রকাশিত ওই কাব্যগ্রন্থের পর নিজেকে অনেকটা আড়ালে সরিয়ে নেন হেলাল হাফিজ।

২০১৩ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পান হেলাল হাফিজ। তার আগে খালেকদাদ স্মৃতি পুরস্কারসহ নানা সম্মাননা পেয়েছেন প্রেম ও যৌবনের এই কবি।

জেএম/রাতদিন

ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে