https://ratdin.news
শেকড়ের খবর সবার আগে...

রংপুরের সাদা মনের সাহিত্যানুরাগী এম এ মজিদ গুরুতর অসুস্থ

রংপুর সাহিত্যাঙ্গনের এক অতি প্রিয় নাম এম এ মজিদ। রাজবংশী ভাষাচর্চায় নিবেদিতপ্রাণ, বিশিষ্ট নাট্যকার, অভিনেতা ও নির্মাতা সাদা মনের এই মানুষটি গুরুতর অসুস্থ। শনিবার, ১৭ আগস্ট রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালের সিসিইউ-তে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সৃজনশীল প্রতিভার অধিকারী এম এ মজিদের অসুস্থতার খবর পেয়ে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ তাকে দেখতে হাসপাতালে যান।

গুরুতর অসুস্থ এমএ মজিদকে দেখতে যান রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা। সাবেক পৌর চেয়ারম্যান কাজী মোঃ জুননুন, নীলফামারী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন ও ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহাবুবার রহমান মঞ্জু।

এম এ মজিদকে দেখতে হাসপাতালে রসিক মেয়র

এছাড়াও রমেক হাসপাতালে তাকে দেখতে যান নাট্যব্যক্তিত্ব রাজ্জাক মুরাদ, সাংবাদিক ও সংগঠক মেরিনা লাভলী, রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আব্দুল হালিম আনছারী, সাধারন সম্পাদক শাহ্ বায়েজীদ আহম্মেদ, সাবেক সাধারন সম্পাদক মোজাফ্ফর হোসেন, সাংবাদিক ইউনিয়নের সেক্রেটারি সরকার মাজহারুল মান্নান, প্রতিদিনের বার্তার নির্বাহী সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম বাবলা, প্রথম খবরের বার্তা সম্পাদক শরিফুল ইসলাম সম্রাট, বাংলার চোখের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান তানবীর হোসেন আশরাফীসহ বিভিন্ন মিডিয়ার সংবাদকর্মী, সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন শাখার কর্মকর্তা ও বেতার নাট্যশিল্পীরা।

বর্তমানে এম এ মজিদের শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

পরিবারের পক্ষ থেকে তার বড় ছেলে সাংবাদিক ফরহাদুজ্জামান ফারুক পিতার সুস্থতার জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

প্রসংগত, ‘হামার রংপুর’খ্যাত ভাওয়াইয়া গানের মিউজিক ভিডিও এবং নাটকসহ অন্তত ৭০টি ভিডিও প্রকাশনায় তিনি অভিনয়ের পাশাপাশি চিত্রনাট্য পরিচালনা করেছেন। তিনি দীর্ঘ ৩৭ বছর মঞ্চ নাটকে কমেডি চরিত্রসহ বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকের প্রশংসা কুড়িয়েছেন।

বাংলাদেশ বেতার রংপুর কেন্দ্রেও নাট্যকার ও শিল্পী হিসেবে তিনি সমাদৃত। রংপুর নাট্যচক্র, রংপুর নাট্যকেন্দ্র, মুক্তাঙ্গন সাংস্কৃতিক সামাজিক সংগঠন বিভিন্ন সংগঠনের গুরুত্বপূর্ন পদে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেছে। বর্তমানে তিনি রংপুর সিটি করপোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগে কর্মরত রয়েছেন।

জেএম/রাতদিন

ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে