রংপুরে আবারো নিষিদ্ধ পলিথিন জব্দ, ম্যানেজারের জরিমানা, কারখানায় তালা

0

রংপুরে একটি কারখানা থেকে দেড় টন নিষিদ্ধ পলিথিন জব্দ করেছে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। মহানগরীতে রিয়াদ এন্টারপ্রাইজ নামের ওই কারখানার লাইসেন্সসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় এর সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

বুধবার, ২৬ আগস্ট দুপুরে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন রংপুর মহানগর পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (ডিবি অ্যান্ড মিডিয়া) ফারুক আহমেদ।

তিনি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল বুধবার বিকেলে নগরীর শালবন মিস্ত্রিপাড়ার শিয়ালুর মোড়ের রিয়াদ এন্টারপ্রাইজে পরিবেশ দূষণ বিরোধী সাঁড়াশি অভিযান চালানো হয়। অভিযানে দেড় টন নিষিদ্ধ পলিথিন জব্দ করা হয়। যার আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় পাঁচ লাখ ২৫ হাজার টাকা।

অভিযানের সময় কারখানার ভেতরে নোংরা পরিবেশে পলিথিন উৎপাদনের বিষয়টি অভিযান পরিচালনাকারীদের নজরে আসে। কারখানার দায়িত্বে থাকা ম্যানেজার বৈধ কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। ওই কারখানার নামে কোনো লাইসেন্স, নিবন্ধন, পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্র ও ফায়ার সার্ভিসের ছাড়পত্র ছিল না।

তিনি আরও জানান, কারখানাটিতে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে নির্ধারিত মাপের বাইরে পলিথিন উৎপাদন হয়ে আসছিল। কারখানায় অগ্নি নির্বাপক ব্যবস্থা, মেশিন অপারেটর ও কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সনদসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় জরিমানা করা হয়।

পরে রংপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মলিহা খানমের ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এতে কারখানার ম্যানেজার মওলা বকশকে আট হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে সাত দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেওয়া হয়। একই সঙ্গে নিবন্ধন না করা পর্যন্ত কারখানার সকল কার্যক্রম ও উৎপাদন বন্ধ রাখার আদেশ দেওয়া হয়।

অভিযানের সময় রংপুর পরিবেশ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ ফারুক হোসেনসহ মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙগত, চলতি বছরের ২২ মার্চ রংপুরে বিপুল পরিমান নিষিদ্ধ পলিথিন জব্দ করা হয়।

জেএম/রাতদিন

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন
মতামত দিন