রংপুরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন, সরকার হটাতে আন্দোলনের ডাক

রংপুর বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি’র ৪৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করা হয়েছে। সেইসাথে মহানগর বিএনপি’র প্রয়াত সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর হোসেনের ২য় মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে স্বরণ সভা এবং দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর দুপুরে রংপুর জেলা বিএনপির আয়োজনে এই প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে বিভিন্ন জায়গা থেকে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের ব্যানারে নগরীর গ্র্যান্ড হোটেল মোড়ের দলীয় কার্যালয়ে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে আসেন নেতাকর্মীরা। সম্মিলিত মিছিলটি শহর প্রদক্ষিণ করতে চাইলে পুলিশ বাধা দেয়।

এসময় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন রংপুর জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক রইচ আহমেদ, সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান রন্টু, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সাহান, আনিছুর রহমান আনিছ, যুবদল কেন্দ্রীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক ও জেলা যুবদল সভাপতি নাজমুল আলম নাজু প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, দেশে আজ গণতন্ত্র, নেই বাক স্বাধীনতা নেই। গুম খুনের রাজত্ব কায়েম করা হয়েছে। মামলা হামলা করে বিরোধী মতের নেতাকর্মীদের হয়রানি করা হচ্ছে। এই অবৈধ সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামতে হবে।

এদিকে বিকেলে রংপুর মহানগর বিএনপির আয়োজনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল হয়েছে। এতে বক্তব্য রাখেন মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিজু, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি সুলতান আলম বুলবুল, রুহুল আমিন বাবলু, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি ও মহিলাদল কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. রেজেকা সুলতানা ফেন্সি, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আশফাকুল ইসলাম বুসনিয়া আজাদ, মির্জা বাবর বাবলু, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম, মহানগর যুবদলের সভাপতি মাহফুজ উন নবী ডন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শহিদুল ইসলাম লিটন, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি নুর হাসান সুমন কৃসকদল কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শাহ নেওয়াজ রহমান লাবু প্রমুখ।

সভা শেষে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের আত্মার শান্তি, রংপুর মহানগর বিএনপির প্রয়াত সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর হোসেনসহ দলের প্রয়াত সকল নেতাকর্মীর রুহের মাগফেরাত ও বিএনপি চেয়ারপার্সন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সুস্বাস্থ্য কামনা করে দোয়া করা হয়।

জেএম/রাতদিন

সাথে থাকুন...
error1
মতামত দিন