রংপুরে সংবাদকর্মী নিগ্রহ: ব্যবস্থা নিতে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম

রংপুরে সংবাদকর্মী নিগ্রহের ঘটনায় জড়িত পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ২৪ ঘন্টার সময়সীমা বেঁধে দিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা। আজ শনিবার, ২১ নভেম্বর রংপুর প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন-সমাবেশে টেলিভিশন ক্যামেরা জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন (টিসিএ) ও রংপুরে কর্মরত সাংবাদিকরা এ আল্টিমেটাম দিয়েছেন।

টিসিএ রংপুরের সভাপতি শাহ্ নেওয়াজ জনির সভাপতিত্বে মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, রংপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুর রশিদ বাবু, সাধারণ সম্পাদক রফিক সরকার, রিপোটার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাহ্ বায়েজিদ আহমেদ, সিটি প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির মানিক, সাংবাদিক লিয়াকত আলী বাদল, আফতাব হোসেন, জাভেদ ইকবাল, মানিক সরকার মানিক ও জুয়েল আহমেদ।

আরও বক্তব্য রাখেন, নাজমুল ইসলাম নিশাত, সরকার মাজহারুল মান্নান, নজরুল ইসলাম রাজু, জাহাঙ্গীর আলম বাদল, মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের নেতা শফিউল করিম শফিক, টিসিএ’র সাধারণ সম্পাদক এহসানুল হক সুমন, বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন রংপুরের সাধারণ সম্পাদক মমিনুল ইসলাম রিপন, রংপুর ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলাম জীবন, রিপোর্টাস্ ইউনিটির সংগঠক রনজিৎ দাস, মাহিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি বাবলু নাগ, তাজহাট প্রেসক্লাবের আহŸায়ক জাকির হুসাইন।

বক্তারা বলেন, পুলিশ বাহিনীর তদন্ত কমিটির বেঁধে দেয়া ৭২ ঘন্টা পার হলেও এখন পর্যন্ত ইন্ডিপেনডেন্ট টিভি’র ক্যামেরাপার্সন লিমন রহমানের উপর হামলাকারী পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। এতে পুলিশ ও সাংবাদিকদের মাঝে যে সৌর্হাদ্যপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে তা ¤øান হচ্ছে। প্রকাশ্যে সংঘবদ্ধভাবে পুলিশ সদস্যরা ওই সংবাদকর্মীকে পিটিয়েছে, সেই ঘটনার ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে অথচ তদন্ত করতে এত সময় কেন লাগছে তা সাংবাদিক সমাজের বোধগম্য নয়।

তারা আরও বলেন, আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাদের তদন্ত প্রতিবেদন প্রস্তুত করে জাতির সামনে তুলে ধরাসহ দোষী পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। অন্যথায় সংবাদকর্মীরা লাগাতার আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবেন।

এইচএ/রাতদিন

This website uses cookies.