https://ratdin.news
শেকড়ের খবর সবার আগে...

রংপুরে ৮ জন মিলে নারীকে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ১

রংপুরে এক নারী সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। গতকাল রোববার, ১৩ সেপ্টেম্বর গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করেছে পুলিশ। এ ঘটনার সাথে জড়িত অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

রংপুর নগরীর হাজিরহাট গিলাবাড়ি এলাকায় ধর্ষণের এ ঘটনা ঘটে। আজ সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কন্ট্রোল রুম থেকে জানানো হয়েছে এসব তথ্য।

পুলিশ ও এলাকার লোকজন জানায়, হাজিরহাট গিলাবাড়ি এলাকার ওই নারীকে গত শনিবার সন্ধ্যায় পূর্ব পরিচিত এক ব্যক্তি কৌশলে বাড়ি থেকে ডেকে আনার পর অপহরণ করে পার্শ্ববর্তী একটি জঙ্গলে নিয়ে যায়। এরপর সেখানে আটজন মিলে তাকে ধর্ষণ করে। এ সময় তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে আশপাশের লোকজন গৃহবধূর গোঙানির শব্দ পেয়ে তাকে উদ্ধার করে বাসায় নিয়ে পৌঁছে দেয়।

এদিকে ঘটনাটি কাউকে না জানানোর জন্য পরিবারটিকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিতে থাকে। এছাড়া পুলিশকে বললে স্বপরিবারে হত্যারও হুমকি দেয়া হয়। এই অবস্থায় গতকাল ওই নারী গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে হাজিরহাট থানায় জানান স্বজনরা। পরে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। ওই গৃহবধূ আট ধর্ষকের নাম পুলিশকে জানিয়েছেন।

এ ঘটনায় রোববার রাতেই ওই নারী বাদী হয়ে হাজিরহাট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

হাজীরহাট থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান জানান, ঘটনার সাথে জড়িত অভিযোগে একজন আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এবি/রাতদিন

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে

RSS
Follow by Email