রোজায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়তে পারে: শিক্ষামন্ত্রী

করোনার কারণে দুই বছর বন্ধ থাকায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এখন চালু রাখা খুবই দরকার বলে মনে করেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। তবে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের একাংশের দাবির কারণে, মাধ্যমিকে ক্লাস কিছুদিন কম নেয়া হতে পারে বলে জানান তিনি।

শুক্রবার বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে এক সম্মেলনে যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সবাই চাইছে রমজানে একটু গরম, বন্ধ রেখে দেন। আসলে তো এখন ক্লাস করা খুবই দরকার। দুই বছর শ্রেণিকক্ষে ক্লাস হয়নি। এখন শ্রেণিকক্ষে ক্লাস করতে না পারলে তাদের জন্য সিলেবাস শেষ করা কষ্টকর হয়ে যাবে।

রোজায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালু রাখতে সরকারের সিদ্ধান্তের পর শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের একটি অংশ এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করছে। তারা করোনার আগে কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় রোজায় স্কুল-কলেজ বন্ধ চাইছে।

করোনার তৃতীয় ঢেউ নিয়ন্ত্রণে আসার পর মাস্ক পরা ছাড়া বিধিনিষেধ তুলে দেওয়া হলে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সশরীরে ক্লাস শুরু হয়। এই কারণে রাজধানীতে যানজটের তীব্রতা ফিরে এসেছে। তাই রোজায় যানজটসহ গরমের কথা চিন্তা করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ চাইছিলেন অভিভাবকরা।

তবে সরকার রোজায় প্রাথমিকে ক্লাস ২০ রোজা এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকে ক্লাস ২৪ রোজা পর্যন্ত ক্লাস নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তবে মাধ্যমিক-উচ্চ মাধ্যমিকেও প্রাথমিকের মতোই ২০ রোজা পর্যন্ত ক্লাস নেওয়া হতে পারে বলে শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন।

সাথে থাকুন...
error1