https://ratdin.news
শেকড়ের খবর সবার আগে...

১৫ সেকেন্ডেই ইমিগ্রেশন পার!

অবিশ্বাস্য হলেও মাত্র ১৫ সেকেন্ডে বিমানবন্দর বা স্থলবন্দরের ইমিগ্রেশন পার হওয়ার সুযোগ চালু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশে। আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও স্থলবন্দরে স্থাপন করা হচ্ছে স্বয়ংক্রিয় সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি বা ই-গেট। এর মাধ্যমে ই-পাসপোর্টধারীরা স্বল্প সময়ে ও সহজেই ইমিগ্রেশন পার হতে পারবেন।

গত ৩১ মার্চ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব শহিদুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় দেশের তিনটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও দুটি স্থলবন্দরে ৫০টি ই-গেট করার সিদ্ধান্ত হয়।

ইমিগ্রেশন সহজ করতে সরকার আগামী ১ জুলাই থেকে ডিজিটাল পাসপোর্ট বা ই-পাসপোর্ট সেবা দেয়া শুরু করছে। পাসপোর্ট অধিদপ্তর সূত্রে এমনটাই জানা গেছে।

২০১০ সালে আন্তর্জাতিক বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থার (আইসিএও) গাইডলাইন অনুযায়ী বাংলাদেশ মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) পদ্ধতি চালু করে। কিন্তু এমআরপি ব্যবস্থায় দশ আঙুলের ছাপ ডাটাবেজে সংরক্ষণ না করায় একাধিক পাসপোর্ট করার প্রবণতা ধরা পড়ে। এর কারণে ই-পাসপোর্টের প্রয়োজনীয়তা ব্যাপকভাবে অনুভব করে সরকার।

এর প্রেক্ষিতে ২০১৬ সালের ২৪ এপ্রিল পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহ উদ্বোধনের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ই-পাসপোর্ট প্রবর্তনের নির্দেশ দেন।

পরবর্তীতে ২০১৭ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি জার্মান প্রতিষ্ঠান ভ্যারিডোস জিএমবিএইচ এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মধ্যে ই-পাসপোর্ট চালুর বিষয়ে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

এনএইচ/রাতদিন

ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে

error

নিয়মিত সংবাদের জন্য সাবস্ক্রাইব করুন