খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

কারাগারে থাকা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নতুন করে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে। 

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত ও জাতিগত বিভেদ সৃষ্টির অভিযোগের মামলায় এ পরোয়ানা জারি করেন আদালত। 

রোববার, ২০ জানুয়ারি ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসীম মামলার প্রতিবেদন আমলে নিয়ে এ পরোয়ানা জারি করেন।

আদালত একই সাথে ১৮ ফেব্রুয়ারি গ্রেফতার সংক্রান্ত তামিল প্রতিবেদন দাখিলের দিনও ধার্য করেন।

এ দিন বাদী এবি সিদ্দিকী আদালতে উপস্থিত হয়ে হাজিরা প্রদান করেন। তিনি ২০১৪ সালের ২১ অক্টোবর মামলাটি দায়ের করেন।

গত বছরের ২৩ জুলাই এ পরোয়ানা জারির আবেদন করেন মামলার বাদী এবি সিদ্দিকী। ওই দিন শুনানি শেষে আদালত আদেশের জন্য গত বছরের ১৬ সেপ্টেম্বর, ২৩ সেপ্টেম্বর, ১ নভেম্বর, ২৬ ডিসেম্বর ও পরবর্তীতে তা পিছিয়ে এ বছরের ২০ জানুয়ারি ধার্য করা হয়।

এর আগে গত বছরের ৩০ জুন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহবাগ থানার ওসি (তদন্ত) জাফর আলী বিশ্বাস।

২০১৪ সালের ১৪ অক্টোবর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে হিন্দু সম্প্রদায়ের শুভ বিজয়ার অনুষ্ঠানে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে বক্তব্য দেন খালেদা জিয়া। এ সময় তিনি আওয়ামী লীগ সম্পর্কে কটুক্তিপূর্ণ সমালোচনা করেন।

ওই বক্তব্য দেয়ার জন্য ২০১৪ সালের ২১ অক্টোবর খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ১৫৩ (ক) ও ২৯৫ (ক) ধারায় ঢাকা মহানগর হাকিম মোস্তাফিজুর রহমানের আদালতে একটি নালিশি মামলা করা হয়। ওই দিনই আদালত মামলাটি গ্রহণ করে তা তদন্তের জন্য শাহবাগ থানার ওসিকে নির্দেশ দেন।

দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে বর্তমানে খালেদা জিয়া কারাগারে রয়েছেন।

এইচএ/২০.০১.১৯

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন