সৈয়দপুরে নারী শ্রমিককে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ২

নীলফামারীর উত্তরা ইপিজেডে কর্মরত এক নারী কর্মী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার, ১৭ জানুয়ারি মামলা দায়েরের পর নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালে ওই নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে।

মামলার এজাহার মতে, সৈয়দপুর পৌরসভার বাসীন্দা ওই নারী গত ১৩ জানুয়ারি কাজ শেষে বাড়ি ফিরে আসে। পরে বাসার সামনের রাস্তায় হাঁটাহাঁটির সময় একই এলাকার শুকুর আলী ছেলে মো. সবুজ ওই নারী কর্মী ফুঁসলিয়ে নিজের বাইসাইকেলে উঠিয়ে নেয়। পরে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় পূর্ব বোতলাগাড়ী দোলাপাড়ার মজিবর রহমানের বাড়িতে।

সেখানে মজিবরের ছেলে মোজাহারুল ইসলাম বেঙ্গু ও সবুজ মিলে ইপিজেডের ওই কর্মীকে ধর্ষণ করে। পরে সবুজ আবারও ওই নারীকে তার বাসায় সামনে এনে নামিয়ে দেয়।

এদিকে অনেক সময় ধরে মেয়েকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে তার বাবা-মা। এক পর্যায়ে মেয়ে বাড়ি ফিরে বাবা-মাকে সব খুলে বলে।

পরে ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর ওই দুই যুবকের পরিবার সালিশ বৈঠকে ঘটনাটি মীমাংসার চেষ্টা চালায়। তবে ওই নারীর পরিবার বিচারের দাবিতে অনড় থাকলে গত বুধবার রাতে এলাকার লোজজন অভিযুক্তদের আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। ।

ধর্ষণের শিকার ওই নারীর বাবা বাদি হয়ে বৃহস্পতিবার সৈয়দুপর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

সৈয়দপুর থানার ওসি শাহজাহান পাশা জানান, গ্রেফতার দুইজনকে নীলফামারী কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এইচএ/১৭.০১,১৯

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন