https://ratdin.news
শেকড়ের খবর সবার আগে...

আচরণবিধি লংঘনের অভিযোগে লালমনিরহাটে এপিএসের বিরুদ্ধে মামলা

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিতের পর নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে সমাজকল্যাণমন্ত্রীর সহকারী ব্যক্তিগত সচিব (এপিএস) মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। তবে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তিনি।

শুক্রবার, ৮ মার্চ রাতে সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও আদিতমারী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আবু সায়ীম বাদি হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলাটি করেন।

এর আগে শুক্রবার রাতে নির্বাচন কমিশনের বৈঠকে আদিতমারী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন। পাশাপাশি মিজানের বিরুদ্ধে মামলারও সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন। এর প্রেক্ষিতে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

লালমনিরহাট জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও আদিতমারীর রিটার্নিং অফিসার মঞ্জুরুল হাসান বলেন, ‘নির্বাচন স্থগিত ও এপিএস মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলার নির্দেশ সংক্রান্ত কমিশনের চিঠি পাওয়ার পর শুক্রবার রাতে মামলাটি করা হয়েছে।’

আদিতমারী থানার ওসি মাসুদ রানা জানান, সরকারি সুযোগ-সুবিধা নিয়ে উপজেলা নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণায় অংশ নেয়ায় আচরণবিধি লংঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে মামলায়।

এর আগে গত ৩ মার্চ স্বতন্ত্র প্রার্থী ফারুক ইমরুল কায়েস মিজানের বিরুদ্ধে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে হুমকি-ধামকীসহ নানা অভিযোগ এনে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে একটি লিখিত অভিযোগ করেছিলেন।

তবে এপিএস মিজানুর রহমান অভিযোগ অস্বীকার করে রাতদিননিউজকে বলেন, ‘আমি কাউকেই ভয়ভীতি দেখাইনি বা হুমকি দেইনি। অথচ আমার বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থী ফারুক নানা ধরণের মিথ্যা অভিযোগ এনে রির্টার্নিং কর্মকর্তার কাছে আবেদন করেছেন।’

তিনি আরও দাবি করেন, ‘ওই প্রার্থীই সাধারণ ভোটারদের নানাভাবে ভয়ভীতি দেখিয়েছে।’

এবি/

ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে