আতংকের প্রহর শেষে দেশে ফিরেছেন টাইগাররা

তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ম্যাচ না খেলেই নিউজিল্যান্ড থেকে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। শনিবার রাত ১০টা ৪২ মিনিটে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায় তারা।

এর আগে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুঃস্বপ্নের মতো একটি দিন কাটানোর পর বাংলাদেশ সময় শনিবার ভোর ৫টায় সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনসের একটি বিমানে ওঠেন দলের ক্রিকেটারসহ ১৯ জন।

এর আগে বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার খালেদ মাসুদ পাইলট সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, ‘শনিবার ভোর ৫টায় রওনা দিয়ে আশা করি বাংলাদেশ সময় রাত ১০টা ৪০ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছাব আমরা। আপাতত ১৯ জন ফিরছি আমরা। কোচিং স্টাফদের কেউ কেউ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও দক্ষিণ আফ্রিকায় যাচ্ছেন। সেখান থেকে দ্রুত সময়ে তাদের টিকেটের ব্যবস্থা করা হবে।’

টাইগারদের দেশে ফেরত আনার বিষয়ে শুক্রবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানান, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহায়তায় দ্রুত ক্রিকেটারদের নিউজিল্যান্ড থেকে ঢাকায় ফেরানোর প্রক্রিয়া চলছে। তিনি আরো জানান, নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড ও সে দেশের সরকারও প্রক্রিয়াটি দ্রুততর করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

প্রসংগত, ক্রাইস্টচার্চের আল নূর মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করতে গিয়ে অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান ক্রিকেটাররা। অস্ট্রেলীয় খ্রিস্টান শ্বেতাঙ্গ জঙ্গির গুলিতে ওই মসজিদসহ দুটি মসজিদের ৪৯ জনের প্রাণহানি ঘটে। দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে প্রথমে টিম বাসের ভেতরে ও পরে স্টেডিয়ামে ঢুকে জীবন বাঁচান বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা।

এর পরপরই নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে তৃতীয় টেস্ট বাতিল করার ঘোষণা দেওয়া হয়। বিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়, দ্রুততম সময়ের মধ্যে দেশে ফেরানো হবে তামিম-মুশফিকদের।

এনএইচ/রাতদিন

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন