আদিতমারীতে আ.লীগ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল যে কারণে

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আ.লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রাথী রফিকুল আলমের মনোনয়নপত্র বাতিল করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। মঙ্গলবার, ১২ ফেব্রুয়ারি যাচাই-বাছাই শেষে তা বাতিল করা হয়।

নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, রফিকুল আলমের নামে বিসিআইসির সার সরবরাহের একটি লাইসেন্স ছিল। যা তিনি এর আগে তার ছোট ভাই রেজা-উদ-দৌলার নামে এফিডেভিট করে দিয়েছিলেন। পরে আবার সেই এফিডেভিট বাতিল করে দেন। ফলে সর্বশেষ লাইসেন্সের মালিক ওই প্রার্থী নিজেই।

জানা গেছে,  রফিকুল আলম তার সেই লাইসেন্সের অনূকুলে সর্বশেষ গত ৬ ফেব্রুয়ারি সরকারি গোডাউন থেকে সার উত্তোলন করেন।

কিন্তু তিনি তার বাতিল করা এফিডেভিটটি মনোনয়নপত্রের সাথে সংযুক্ত করে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে জমা দেন। ফলে যাচাই-বাছাই শেষে তা বিধি বর্হিভূত উল্লেখ করে মনোনয়নপত্রটি বাতিল করা হয়।

রিটার্নিং অফিসার মঞ্জুরুল হাসান জানান, রফিকুল আলমের মনোনয়নপত্রটি উপজেলা নির্বাচন আইন ১৯৯৮ এর ৮(জ) ধারা মতে বাতিল করা হয়েছে।

অপর দিকে আ.লীগ প্রার্থী রফিকুল আলম বলেন, ‘সারের লাইসেন্সটি ভাইয়ের নামে এফিডেভিট করে দেয়ার পরও আমার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। আমি এ বিষয়ে আপিল করবো।’

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আইন ১৯৯৮ এর ৮(জ) ধারায় প্রার্থীর অযোগ্যতা হিসেবে বলা হয়েছে , ‘‘কোন সমবায় সমিতি এবং সরকারের মধ্যে সম্পাদিত চুক্তি ব্যতীত, সংশ্লিষ্ট উপজেলা এলাকায় সরকারকে পণ্য সরবরাহ করিবার জন্য বা সরকার কর্তৃক গৃহীত কোন চুক্তির বাস্তবায়ন বা সেবা কার্যক্রম সম্পাদনের জন্য, তাঁহার নিজ নামে বা তাঁহার ট্রাস্টি হিসাবে কোন ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গের নামে বা তাঁহার সুবিধার্থে বা তাঁহার উপলক্ষে বা কোন হিন্দু যৌথ পরিবারের সদস্য হিসাবে তাঁহার কোন অংশ বা স্বার্থ আছে এইরূপ চুক্তিতে আবদ্ধ হইয়া থাকেন’’

এমআরডি/১২.০২.১৯

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন