ঈদ উপলক্ষে রংপুর-লালমনিরহাটের যাত্রীদের জন্য বিশেষ ট্রেন চালু হলো

ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে পার্বতীপুর রেলওয়ে জংশন হয়ে একজোড়া স্পেশাল ট্রেন চালু করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। বিশেষত: গার্মেন্টস শ্রমিকদের কথা বিবেচনা করে ট্রেনগুলো পার্বতীপুর থেকে জয়দেবপুর পর্যন্ত চলাচল করবে।

আজ বৃহস্পতিবার, ৭ জুলাই ট্রেনটি জয়দেবপুর ষ্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করেছে। ঈদের আগের ৩ দিন পর্যন্ত ট্রেনটি এবং ঈদের পরে ৪ দিন পর্যন্ত ট্রেনটি চলাচল করবে।

গামের্ন্টস কর্মীদের কথা চিন্তা করে প্রথমবারের মত জয়দেবপুর ষ্টেশন থেকে ঈদ স্পেশাল ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ রেলওয়ে। সেই মোতাবেক পার্বতীপুর রেলওয়ে জংশন হয়ে জয়দেবপুর, বীরমুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম ষ্টেশন পর্যন্ত ট্রেনটি চলাচল শুরু করেছে।

ট্রেনটিতে রংপুর ও লালমনিরহাটের যাত্রীদের জন্য সিট বরাদ্দ রয়েছে। ট্রেনটি পার্বতীপুর রেলওয়ে জংশনে আসার পর শাটল ট্রেনের মাধ্যমে রংপুর ও লালমনিরহাটের যাত্রীরা তাদের নির্ধারিত স্থানে পৌছাবে।

এদিকে ৬ জুলাই থেকে ৯ জুলাই পর্যন্ত রংপুর, লালমনি, একতা, দ্রুতযান, পঞ্চগড়, কুড়িগ্রাম ও নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনগুলো ডাউনে বা ঢাকা যাওয়ার সময় বিমান বন্দর ষ্টেশনে কোন বিরতি দিবে না। এতে টিকেটধারী যাত্রীগণ সুষ্ঠভাবে ট্রেনে উঠতে পারবেন। তবে শুধু ঢাকায় যাওয়ার পথে দাড়াবেনা। ঢাকা থেকে ছেড়ে আসার পথে বিমান বন্দর ষ্টেশনে দাড়াবে।

ঈদ স্পেশাল এই ট্রেনটি জয়দেবপুর থেকে সন্ধ্যা ০৭ টা ১৫ মিনিটে ছেড়ে ভোর ৫ টা ২৫ মিনিটে বীরমুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম ষ্টেশনে পৌছাবে। এই ট্রেনের সাথে কানেক্টিং শাটল-১ ট্রেনটি ঈদের আগে পার্বতীপুর থেকে রাত ২ টা ৫০ মিনিটে ছেড়ে ৪ টা ৫০ মিনিটে লালমনিরহাটে পৌছাবে।

ঈদের পরে পার্বতীপুর জংশন হতে সকাল ১০ টা ১০ মিনিটে ছেড়ে লালমনিরহাটে পৌছাবে ১২ টা ১৫ মিনিটে। ঈদ স্পেশাল-২ ট্রেনটি বীরমুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম ষ্টেশন থেকে সকাল ৬ টা ২৫ মিনিটে ছেড়ে বিকাল ৩টা ৪৫ মিনিটে জয়দেবপুর ষ্টেশনে পৌছাবে। কানেক্টিং শাটল-২ ট্রেনটি লালমনিরহাট থেকে সন্ধ্যা ৭ টায় ছেড়ে রাত ৯ টায় পার্বতীপুর রেলওয়ে জংশনে পৌছাবে।

ঈদের পরে লালমনির হাট থেকে ছাড়বে ৬ টা ৫০ মিনিটে এবং পার্বতীপুরে পৌছাবে ৮ টা ৫০ মিনিটে।

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন