উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার পথে সমাজকল্যানমন্ত্রী

উন্নত চিকিৎসার জন্য সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদকে ঢাকায় নেয়া হচ্ছে। রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতাল থেকে ঢাকার পথে রওয়ানা দিয়েছেন তিনি।

আজ রোববার, ৮ মে দুপুর দেড়টার দিকে তিনি রমেক থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। মন্ত্রীর বোন চায়না রহমান জানান, মন্ত্রীকে রংপুর ক্যান্টনমেন্ট থেকে হেলিকপ্টারযোগে ঢাকায় নেওয়া হবে।

রমেক হাসপাতাল ত্যাগ করছেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে গতকাল রাতে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।

এর আগে, গতকাল শনিবার, ৭ মে রাতে গ্রামের বাড়ি লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে অবস্থানকালীন সমাজকল্যাণমন্ত্রী বুকে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করেন। অ্যাম্বুলেন্সে করে রাত আড়াইটায় তাকে রমেক হাসপাতালে নেওয়া হয়।

সেখানে তাকে কার্ডিওলজি বিভাগের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি করা হয়। এ পর্যন্ত তিনি সিসিইউ বিভাগের চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. শাকিল গফুরের তত্ত্বাবধানে ছিলেন।

আজ রোববার, ৮ মে বেলা সাড়ে ১০টায় রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. বিমল রায় রাতদিন নিউজকে জানান, মন্ত্রীর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। তবে উন্নত চিকিৎসার জন্য আজই তাকে ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. শাকিল গফুর জানান, মন্ত্রী মহোদয় ঈদ পরবর্তীতে কয়েকটি জনসভায় অংশ নিয়েছিলেন। শনিবার অনেক রাতে তিনি রাতের খাবার খেয়ে পান-সুপারি খাওয়ার সময় বুকে ব্যথা অনুভব করেন। এদিন রাত আড়াইটার দিকে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার হার্ট অ্যাটাকের কোন লক্ষণ ছিল কি না এজন্য আমরা ইসিজি করেছি। সেটি নরমাল পাই। এছাড়া এনজাইম পরীক্ষা করে স্বাভাবিক ফল পাওয়া গেছে। তবে একবার এনজাইম পরীক্ষা করে সঠিকভাবে মূল্যায়ন করা যায় না। আমাদের হাসপাতালে থাকলে আমরা আরও অনন্ত ২টি এনজাইম পরীক্ষা করতাম।

তিনি দুপুর পর্যন্ত ভালো ছিলেন। তার রক্তচাপ স্বাভাবিক, শ্বাসকষ্ট-বুকে ব্যথা নেই। পরিবারের সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে মন্ত্রী মহোদয়কে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে বলে জানান ডা. শাকিল গফুর।

সাথে থাকুন...
error1