চিলাহাটিতে স্থলবন্দর চালুর প্রস্তাব বাংলাদেশের : বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি রোববার ভারতের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার ড. আদর্শ সোয়াইকার সাথে বৈঠক করেন। ছবি : পিআইডি

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, নীলফামারীর চিলাহাটি সীমান্তে একটি স্থলবন্দর চালুর জন্য ভারতকে প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ।

তিনি বলেন, ‘চলমান বর্ডারহাটের সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য আমরা উভয় দেশ একমত হয়েছি। চলমান বর্ডারহাটের পাশাপাশি আরো ৬টি বর্ডারহাট চালু করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে’।

আগামী মার্চে উভয় দেশের মধ্যে পর্যটকবাহী নৌযান চালু হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এতে উভয় দেশের পর্যটকরা নৌপথে ভ্রমণ করতে করবেন’।

রোববার, ২৭ জানুয়ারি নিজের কার্যালয়ে ভারতের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার ড. আদর্শ সোয়াইকার সাথে দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

সরকারি এক তথ্যবিবরণী সূত্রে জানা গেছে এসব তথ্য।

মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ১০০টি স্পেশাল ইকোনমিক জোনে তিনটিতে ভারত বড় ধরনের বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। মংলায় ১১০ একর জমির ওপর স্পেশাল ইকোনমিক জোনের কাজ অল্পদিনের মধ্যেই শুরু করবে। মিরসরাইয়ে এক হাজার একর জমির ওপর এবং ভেড়ামারায় অপর একটি ইকোনমিক জোন গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে ভারত’।

টিপু মুনশি বলেন, ‘বাংলাদেশিদের জন্য ভিসা ইস্যুর ক্ষেত্রে জটিলতা নিরসনের জন্য ভারতকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। বাংলাদেশি পণ্য ভারতে রপ্তানির ক্ষেত্রে সমস্যাগুলো দূর করতে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে’।

ভারতের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘আগামী কিছুদিনের মধ্যে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে পর্যটকবাহী নৌযান চালু হবে। প্রথমে ভারতের পর্যটক দল নৌপথে বাংলাদেশের সুন্দরবন ভ্রমণ করবে’।

এইচএ/২৭.০১.১৯

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন