ঢাকায় ভোটার উপস্থিতি কম নিয়ে যা বললেন সিইসি

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে ভোটগ্রহন চলছে। চলবে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত। এরমধ্যে ঢাকা উত্তর সিটিতে মেয়র পদে উপনির্বাচন এবং ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ দুই সিটি কর্পোরেশনের সম্প্রসারিত ১৮টি করে মোট ৩৬টি ওয়ার্ডে ভোটগ্রহণ চলছে।

তবে এসব ভোট কেন্দ্রে দুপুর পর্যন্ত ভোটার উপস্থিতি কম দেখা গেছে। আর ভোটার উপস্থিতি কম থাকার দায় প্রার্থী ও রাজনৈতিক দলগুলোর বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নিবার্চন কমিশন( সিইসি) কেএম নূরুল হুদা।

আজ বৃহস্পতিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর উত্তরার আইইএস স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভোট কেন্দ্রে নিজে ভোট দেওয়ার পর সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন সিইসি।

তিনি বলেন, আজ দুই সিটির নির্বাচনে ভোটারের উপস্থিতি যে কম, এর দায় ইসির না। দায় প্রার্থী ও রাজনৈতিক দলগুলোরই।

ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার বিষয়ে দুটি কারণ উল্লেখ করে সিইসি বলেন, একটি কারণ এ নির্বাচনের মেয়াদ অল্প দিনের। ফলে ভোটারদের আগ্রহ কম। অপরটি হলো এ ভোটে সব দল অংশ নেয়নি। এতেও উপস্থিতি কম হয়েছে।

তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটারদের উপস্থিতি বাড়তে পারে বলে আশা প্রকাশ করেন সিইসি

নির্বাচন উপলক্ষে ঢাকার দুই সিটি ও নির্বাচনী এলাকাগুলোতে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু ও সুন্দর নির্বাচন অনুষ্ঠানের সব প্রস্ততি সম্পন্ন করেছে। নিরাপত্তা রক্ষায় বিজিবি, পুলিশ ও র‌্যাবের যেমন টহল টিম আছে। তেমনি গুরুত্বপূর্ণ জায়গায়গুলোতে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে বিভিন্ন বাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে।

মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুতে ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র পদে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ পদে আওয়ামী লীগসহ চারটি রাজনৈতিক দলের চারজন ও একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

তবে বিএনপি এ নির্বাচনে অংশ নেয়নি। এ ছাড়া ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটির সঙ্গে ১৮টি করে নতুন ওয়ার্ড যুক্ত হওয়ায় সেগুলোতেও ভোট গ্রহণ চলছে।

এমআরডি/রাতদিন

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন