পঞ্চগড়ে অনড় আ.লীগের ১১ বিদ্রোহী

পঞ্চগড়ের চার উপজেলাতেই দলটির একাধিক প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন, নেমেছেন ভোটের মাঠে। তারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে সক্রিয় আছেন। তবে তৃণমূল নেতাকর্মীরা ওই প্রার্থীদের দেখছেন আ.লীগের ‘বিদ্রোহী’ হিসেবে।

বিদ্রোহী প্রার্থীদের অনেকেই ভোটের লড়াইয়ে থাকবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। তবে জেলা আ.লীগের দায়িত্বশীল একজন নেতার ধারণা, নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর বিপক্ষে শেষ পর্যন্ত দলের বিদ্রোহীরা ভোটযুদ্ধে থাকবেন না।

জানা গেছে, আটোয়ারী, তেঁতুলিয়া, বোদা ও দেবীগঞ্জ এই চার উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আ.লীগ মনোনীত ও দলের একাধিক বিদ্রোহী প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

ওই চার উপজেলায় দল মনোনীত চার প্রার্থী ছাড়াও ১১ জন বিদ্রোহী প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।  জেলায় শুধুমাত্র পঞ্চগড় সদর উপজেলায় কোনো বিদ্রোহী প্রার্থী নেই।

দেবীগঞ্জ :
দেবীগঞ্জে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাসনাৎ জামান চৌধুরী জর্জ। সোমবার তিনি রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

তবে তিনি ছাড়াও এ উপজেলায় আ.লীগের  আরও ছয়  বিদ্রোহী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।  

তারা হলেন, উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য হারুন অর রশিদ, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ.লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক চিশতী, উপজেলা আ.লীগের সদস্য ও বর্তমান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পরিমল দে সরকার। এছাড়া উপজেলা আ.লীগের সদস্য মকলেছুর রহমান হেলাল, আ.লীগের সমর্থক হিসেবে পরিচিত অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ও রবিউল আলম।

এসব প্রার্থীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, তাদের বেশিরভাগই দলীয় প্রার্থী হাসনাৎ জামান চৌধুরী জর্জকে ঠেকাতেই স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মাঠে রয়েছেন।

বোদা :
এ উপজেলায় মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন নৌকা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থী উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আলম টবি। তাঁর পাশাপাশি ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন উপজেলা আ.লীগের সহসভাপতি আজাহার আলী, সাকোয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি সায়েদ জাহাঙ্গীর আলম সবুজ এবং ময়নদিঘী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার।

আটোয়ারী :
এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে দুইজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র  জমা দিয়েছেন। দুজনই আ.লীগের। তারা হলেন দল ঘোষিত প্রার্থী উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল ইসলাম এবং উপজেলা আ.লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আনিছুর রহমান।

তেঁতুলিয়া :
তেঁতুলিয়ায় দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন  উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী মাহামুদুর রহমান ডাবলু। তবে সেখানে বিদ্রোহী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জেলা আ.লীগের সহসভাপতি ও সাবেক সাংসদ ফরিদা আখতার হীরা।

পঞ্চগড় সদর :
পঞ্চগড় সদর উপজেলায় দলীয় মনোনয়নপ্রাপ্ত জমা দিয়েছেন উপজেলা আ.লীগের সভাপতি আমিরুল ইসলাম। একমাত্র এ উপজেলায় দলটির কোনো বিদ্রোহী প্রার্থী নেই।

কি বলছে জেলা আ.লীগ?
কেন্দ্র ঘোষিত প্রার্থীর বাইরে নিজেদের দলের লোকজনের ভোটের মাঠে সক্রিয় থাকা প্রসঙ্গে প্রতিবেদকের কথা হয় জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার সাদাত সম্রাটের সাথে।

তিনি বলেন, ‘দল মনোনীত প্রার্থীদের বাইরে যারা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন তারা শেষ পর্যন্ত বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন বলে মনে হয় না।’

‘তবে এরপরও কেউ বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করলে দল তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে’- যোগ করে বলেন আনোয়ার সাদাত সম্রাট।

এমএইচ/রাতদিন

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন