প্রার্থী তিনি, কর্মীও তিনি!

আব্দুল হাই সরকার। বয়স ৭৩ বছর। মুক্তিযোদ্ধা ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ। তিনি ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ ভাসানী) চেয়ারম্যান। এবারের আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নীলফামারী-৪ (সৈয়দপুর – কিশোরগঞ্জ) আসনে এনপিপি মনোনীত প্রার্থী।

নির্বাচন ঘিরে প্রার্থীরা যখন দলীয় নেতাকর্মী, সমর্থক, আত্মীয়-স্বজন ও পরিবারের সদস্যদের নিয়ে নির্বাচনী গণসংযোগে ব্যাস্ত। তখন আব্দুল হাই সরকার একাই তার গণসংযোগ করে চলেছেন। তার সাথে নেই কোন নেতাকর্মী ও পরিবারের লোকজন।

সরেজমিন দেখা যায়, সোমবার (২৪ ডিসেম্বর) আব্দুল হাই সরকার গণসংযোগ করছেন সৈয়দপুর শহরের শেরেবাংলা সড়কে। হাতে একটি ব্যাগ। যাতে রয়েছে নির্বাচনী লিফলেট।

শহরের জনবহুল ওই সড়কের দু’ধারের দোকানদারদের মাঝে তিনি তাঁর লিফলেট বিতরণ করছেন। ভোটারদের সাথে করমর্দন করাসহ ভালমন্দ জানার চেষ্টা করছেন। সেই সাথে তাঁর ‘আম’ প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করছেন।

এ সম্পর্কিত আরও খবর...

আব্দুল হাই সরকার বলেন, ‘নির্বাচিত হলে সৈয়দপুরকে উত্তরবঙ্গের ব্যবসায়িক রাজধানী ঘোষণা করবো’।

জানা গেছে, আব্দুল হাই সরকার মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে পাড়ি জমান রাজধানী ঢাকায়। তাঁর বাড়ি নীলফামারীর ডিমলায় হলেও তিনি বছরের বেশিভাগ সময়ই কাটান ঢাকায়। দিন তিনেক আগে তিনি তাঁর নির্বাচনী এলাকায় এসে গণসংযোগ শুরু করেন।

এমএস-০৬/২৪.১২.১৮

সাথে থাকুন...
মতামত দিন