বিয়ে অনুষ্ঠানের ১৯ লাখ টাকা নিহতের পরিবারকে দান!

একমাত্র মেয়ে অ্যামি। তার বিয়ের জন্যই বাবা দেওয়াসি মানেক জমিয়েছিলেন ১৬ লাখ রুপী। যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ১৯ লাখ। ইচ্ছা ছিল সেই টাকায় ধূমধাম করে বিয়ে দিবেন একমাত্র আদরের মেয়ে অ্যামির। আয়োজন চলছিল ঠিকই।

কিন্তু তার আগে খবর এলো কাশ্মীরে জঙ্গি হামলায় ৪৯ জন জওয়ানের প্রাণহানির। যাদের কেউ সদ্য বাবা হয়েছেন, কারও স্ত্রী সন্তানসম্ভবা আবার কেউ কেউ পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী। আর তাই মেয়ের বিয়ের জন্য জমা করা ওই ১৬ লাখ রুপী নিহত জওয়ানদের পরিবারের উদ্দেশ্যে দান করেছেন বাবা মানেক।

জানা গেছে, গুজরাতের সুরাতের একজন ছোট হীরা ব্যবসায়ী দেওয়াসি মানেক। গত শুক্রবার ১৫ ফেব্রুয়ারি ছিল তার মেয়ে অ্যামির বিয়ের দিন। একমাত্র বিয়েতে খুবই তোড়জোড় শুরু হয় ঠিকই। কিন্তু একদিন বাকি থাকতেই খবর এলো, কাশ্মীরে ৪৪ নম্বর জাতীয় সড়কের উপর সিআরপিএফ জওয়ানদের কনভয়ের উপর জইশ-ই-মহম্মদ গোষ্ঠীর আত্মঘাতী হামলায় ৪৯ জন নিহত হন।

যা এ যাবৎ কালের মধ্যে কাশ্মীরে সব থেকে বড় জঙ্গি হানা। ফলে গণমাধ্যম থেকে নিহত জওয়ানদের খবর পেয়ে আর ঠিক থাকতে পারেননি মানেক। আর তাই নিহত জওয়ানদের পরিবারের জন্য ১৬ লাখ টাকা দান করেছেন তিনি।

এরমধ্যে ১১ লাখ রুপী জঙ্গি হামলায় নিহত জওয়ানদের পরিবারকে। আর বাকি ৫ লাখ রুপী সিআরপিএফ তহবিলে তিনি দান করেছেন। পাশাপাশি সিআরপিএফের কাছে মানেক আবেদন করেন নিহত জওয়ানদের পরিবারের মধ্যে ওই টাকা ভাগ করে দেওয়ার জন্য।

তবে এমন দানকে অবশ্য কোনও ভাবেই মহৎ বলতে নারাজ দেওয়াসি মানেক। তিনি জানিয়েছেন যে, এটা দেশবাসী হিসেবে তাঁর কর্তব্যের মধ্যেই পড়ে। একমাত্র মেয়ের বিয়ে বন্ধ করতে না চাইলেও, বিয়ের খরচ বাদে আনুষঙ্গিক আর কোনও খরচ করতে মন চায়নি তাঁর। সেকারণে তিনি তাঁর মেয়ের জন্য শুধু একটু আশীর্বাদ চেয়ে নিয়েছেন সকলের থেকে। তথ্য সূত্র : ভারতীয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম

এমআরডি-১৭.০২.২০১৯

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন