মঙ্গলগ্রহে ব্যবহার উপযোগী রোবট বানিয়েছে সিলেটের দুই শিক্ষার্থী

সিলেটের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় লিডিং ইউনিভার্সিটির ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থীরা একটি রোবট তৈরি করেছেন।

এর নাম ‘মারস্ রোবার’ । যেটি বিভিন্ন প্রতিকূল পরিবেশে এমনকি মঙ্গলগ্রহেও কাজ করতে সক্ষম।

এটি তৈরি করেন বিভাগের শেষবর্ষের শিক্ষার্থী ইমতিয়াজ আহমেদ প্রবাল ও ফাহিম আহমদ হামীম।

তারা রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থাকে জানান, ‘অনেক দিন ধরে বিজ্ঞানীরা মানুষের বসবাসের জন্য পৃথিবীর বাইরে বিকল্প একটি আবাসস্থল খুঁজে আসছেন। এমন চিন্তা-চেতনায় কাজ করতে গিয়েই আমরা এই রোবটটি বানিয়েছি’।

নির্মাতারা দাবি করেছেন, পৃথিবীতে বসে স্বয়ংক্রিয়ভাবে রোবটটি মঙ্গলগ্রহে চালানো যাবে।

এ রোবটে ৪টি ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। এটি মঙ্গলগ্রহে স্থাপিত হলেও রোবটের সকল কর্মকান্ড পৃথিবী থেকে পর্যবেক্ষণ করা যাবে।

রোবটটির প্রধান কাজ হচ্ছে মাটি, পাথর ইত্যাদি পরীক্ষা-নিরীক্ষা, ভিন্নগ্রহে প্রাণের অস্থিত্ব অনুসন্ধান, আশপাশের আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ ইত্যাদি। এসব কাজ করার জন্য রোবটটিতে বিভিন্ন ধরনের সেন্সর রয়েছে।

লিডিং ইউনিভার্সিটির ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান ও সহযোগী অধ্যাপক রুমেল এম.এস রহমান পীর বলেন, ‘‘এই বিভাগের শিক্ষার্থীরা বরাবরই গবেষণায় ভালো করে আসছে। এর আগে ইমতিয়াজ ও ফাহিম ভারতের চেন্নাইতে অনুষ্ঠিত ‘ইন্ডিয়ান রোবারস্ চ্যালেঞ্জ ২০১৮’- এ এশিয়ার মধ্যে দ্বিতীয় স্থান এবং বাংলাদেশে প্রথম স্থান অধিকার করেছিল’’।

তাছাড়া দেশে অনুষ্ঠিত অনেক রোবটিক্স প্রতিযোগিতায় তারা প্রথম স্থান অধিকার করেছে বলেও জানান তিনি।

এবি/০১.০২.১৯

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন