রংপুরে আইনজীবী বাবুসোনা হত্যায় স্ত্রীর মৃত্যুদন্ড

রংপুরের আলোচিত আইনজীবী রথীশ চন্দ্র ভৌমিক ওরফে বাবুসোনা হত্যা মামলার রায় ঘোষণা হয়েছে মঙ্গলবার, ২৯ জানুয়ারি।

দুপুর একটার দিকে রায়ে ওই আইনজীবীর স্ত্রী স্নিগ্ধা সরকার ওরফে দীপাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ড কার্যকরের রায় ঘোষণা করেন বিচারক।

রংপুরের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এবিএম নিজামুল হক এ রায় ঘোষণা করেন ।

গত বছরের ২৯ মার্চ রাতে ওই আইনজীবীকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়।

এ মামলায় একমাত্র জীবিত আসামী বাবুসোনার স্ত্রী স্নিগ্ধা সরকার ওরফে দীপাকে মঙ্গলবার, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়।

এর আগে গত ২১ জানুয়ারি যুক্তিতর্ক শেষে রংপুরের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এবিএম নিজামুল হক রায় ঘোষণার দিন ধার্য করেন।

এ সম্পর্কিত আরও খবর...

পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) আব্দুল মালেক জানান, বাবুসোনা হত্যা মামলায় ৩৭জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্যগ্রহণের পর ২১ জানুয়ারি যুক্তিতর্ক শেষে রায় প্রদানের দিন ধার্য করেন আদালত।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি আব্দুল মালেক এবং আসামি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন রাষ্ট্র নিযুক্ত আইনজীবী বসুনিয়া মো. আরিফুল ইসলাম স্বপন।

গত বছরের ৩০ অক্টোবর থেকে এই হত্যা মামলার স্বাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়।

নিহত আইনজীবী বাবুসোনা ছিলেন রংপুর বিশেষ জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি)।  

তিনি ছিলেন রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক। বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ রংপুরের সভাপতি।

হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি এবং সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের রংপুর শাখার সাধারণ সম্পাদকেরও দায়িত্ব পালন করেছেন নিহত ওই আইনজীবী।

সাথে থাকুন...