সৈয়দপুর আগুনে ক্ষতিগ্রস্থ ২৫ পরিবার খোলা আকাশের নিচে

নীলফামারীর সৈয়দপুরে আগুনে বসতবাড়িসহ সবকিছু হারনো ২৫ পরিবার এখনো খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে। মঙ্গলবার, ১৫ জানুয়ারি রাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আশ্রয়ের কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে জানা গেছে।

তবে মঙ্গলবার এসব মানুষকে নানা ধরণের সহায়তা দেওয়া হয়েছে। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোখছেদুল মোমিন এবং ব্র্যাকের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে নগদ টাকা, শাড়ি-লুঙ্গি, চাল, ডাল, তেল ও চিড়া বিতরণ করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগুনে সর্বস্ব হারানো পরিবারের বিভিন্ন বয়সী মানুষ কনকনে শীতে খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবণ কাটাচ্ছে।

সৈয়দপুর ইউএনও’র দায়িত্বে থাকা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার জানান, ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপন করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। অনুমোদন আসা মাত্রই ক্ষতিগ্রস্তদের আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা হবে।

এর আগে অগ্নিকান্ডের পর ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান ইউএনও’র দায়িত্বে থাকা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার এবং উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. আজমল হোসেন সরকার। এসময় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিটি পরিবারকে ১০ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল এবং ৩টি করে নতুন কম্বল দেয়া হয়।

প্রসঙ্গত উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিন সোনাখুলী মুন্সিপাড়ায় রোববার, ১৩ জানুয়ারি রাতে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

দেলোয়ার হোসেনের বাড়ির রান্নাঘর থেকে সূত্রপাত হওয়া আগুন ছড়িয়ে পড়ে আশপাশের ঘরবাড়িতে। এতে ২৫ পরিবারের ৫০ ঘর, নগদ টাকা, আসবাবপত্র, স্বর্ণালংকার, ধান-চালসহ সবকিছু ছাই হয়ে যায়।

পরে খবর পেয়ে নীলফামারী, সৈয়দপুর ও উত্তরা ইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে ঘন্টা দুয়েকের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

এইচএ/১৫.০১.১৯

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন
মতামত দিন