ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় বাবা নিহত

প্রতিপক্ষের হামলা থেকে ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন বাবা। তার নাম ফরিদুল ইসলাম (৪৫)। তিনি পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলার টেপ্রিগঞ্জ ইউনিয়নের রামগঞ্জবিলাসী মেলাপাড়া এলাকার বাসিন্দা ছিলেন।

বৃহস্পতিবার, ৩১ জানুয়ারি দুপুরের দিকে ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোশারফ হোসেন জানান, মাস খানেক আগে রামগঞ্জবিলাসী মেলাপাড়া এলাকার সিদ্দিক হোসেনের ছেলে সুজনের (১৮) সাথে লিটন ইসলামের ছেলে কামাল হোসেনের (১৬) ক্রিকেট খেলা নিয়ে দ্বন্দ্ব হয়।

বিষয়টি নিয়ে আজ বৃহস্পতিবার সকালে নিহত ফরিদুল ইসলামের ছেলে গোলাম রব্বানি (২০) বৈসালুপাড়া এলাকায় দুই পক্ষকে নিয়ে সমঝোতার চেষ্টা করেন। তবে কামাল সমঝোতা না মেনে উল্টো রব্বানির সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে তারা বাড়ি ফিরে যায়।

দুপুরে রব্বানি তার বাবার সাথে খাজনা দিতে টেপ্রিগঞ্জ ইউনিয়ন ভূমি অফিসে গেলে সেখানে কামাল ও তার লোকজন রব্বানির উপর হামলা করে।

এসময় প্রতিপক্ষের হামলা থেকে ছেলেকে রক্ষা করতে গিয়ে নিজেও মারধরের শিকার হন ফরিদুল।

পরে গুরুতর আহত অবস্থায় গোলাম রব্বানি ও তার বাবা ফরিদুল ইসলামকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যায় লোকজন। পরে সেখানই মারা যায় ফরিদুল।

নিহত ফরিদুলের বড়ভাই আব্দুস সাত্তার বলেন, ‘আমার সামনেই কামাল ও তার লোকজন আমার ভাই-ভাতিজার উপর হামলা করে’।

দেবীগঞ্জ থানার ওসি রবিউল হাসান সরকার বলেন, ‘ছেলেদের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারামারির এক পর্যায়ে বাঁধা দিতে গেলে ফরিদুল ইসলাম আহত হন। পরে হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়’।

নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর পাশাপশি এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানিয়েছেন ওসি।

এইচএ/৩১.০১.১৯

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন