রংপুরে কন্যাকে যৌন নির্যাতনের দায়ে গ্রেফতার বাবা

রংপুরে নিজ কন্যাকে যৌন নিপীড়ন ও নির্যাতনের অভিযোগে বাবা আব্দুল মাজেদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। যৌন নির্যাতনের শিকার কিশোরী কোতোয়ালি থানার ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।

রোববার, ৬ মার্চ সকালে ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে কোতোয়ালি মামলা করলে তাকে সেই মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়।

এর আগে শনিবার মধ্যরাতে নগরীর কামারপাড়া এলাকার একটি ভাড়াবাড়ি থেকে অভিযুক্ত মাজেদকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় রোববার সকালে ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে কোতোয়ালি মামলা করলে তাকে সেই মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়।

শারীরিক পরীক্ষার জন্য মেয়েটিকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিপীড়নের শিকার মেয়েটির মা জানান, ‘আমার স্বামী মাদকাসক্ত। দিনের বেশির ভাগ সময়ই নেশা করে বাড়িতে থাকে। আমি মেয়েকে বাসায় রেখে বাইরে কাজে যাই। মেয়েকে বাসায় থেকে রান্নাবান্নাসহ অন্যান্য কাজ করতে বলি। কিন্তু বাসায় এসে দেখি মেয়ে কোনো কাজ না করে বাইরে বাইরে ঘুরে বেড়ায়। পরে রাগ হয়ে মেয়েকে মারধর করলে তার বাবার হাতে নির্যাতনের শিকার হওয়ার বিষয়টি জানতে পারি।

মেয়ের মুখ থেকে যৌন নিপীড়ন ও নির্যাতনের কথা শোনার পর পুলিশ এবং এক সাংবাদিককে জানাই। পরে পুলিশ এসে ওর বাবাকে ধরে নিয়ে গেছে।

এদিকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হোসেন আলী বলেন, এ ঘটনায় মেয়ের মা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন।

সাথে থাকুন...
error1