লালমনিহাটে ৫ জঙ্গীর কারাদন্ড, ২ জনের যাবজ্জীবন

লালমনিরহাটে নিষিদ্ধ ঘোষিত  সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের (এবিটি) সাত সক্রিয় সদস্যকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। এর মধ্যে দুই জঙ্গীর যাবজ্জীবন ও তিনজনকে দশ বছর করে কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন মহামান্য আদালত।

আজ মঙ্গলবার, ৩১ মে দুপুরে বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক ও জেলা দায়রা জজ মোঃ মিজানুর রহমান এ আদেশ দেন।

রায় ঘোষণার সময় দুই আসামি আদালতে হাজির ছিলেন। পরে তাদের জেলা কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

যাবজ্জীবন কারাদন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, কালীগঞ্জ থানার মুশরত মদাতী এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের পুত্র হাসান আলী ও একই এলাকার আব্দুল জলীলের পুত্র আসমত আলী।

এছাড়াও বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে ১০ বছর কারাদণ্ড প্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছেন, কালীগঞ্জ উপজেলার চরভোটমারী এলাকার মুনছার আলীর পুত্র শাফিউল ইসলাম,  কালীগঞ্জের মুশরাত মদাতী এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের পুত্র নাইম মিস্টার এবং একই এলাকার সিরাজুল ইসলামের পুত্র আলী হোসেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালে অক্টোবর মাসের ৩০ তারিখ র‍্যাব-১৩ সন্ধ্যার  দিকে কালীগঞ্জের মুশরত মদাতী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন বাড়ি থেকে নাশকতামূলক গোপন বৈঠক করাকালীন নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের এই পাঁচ সদস্যকে আটক করে। এ সময় হাসান আলী ও আসমত আলীর কাছ থেকে বিদেশী পিস্তল, ফায়ারিং পিন ও টিগারযুক্ত ১ টি ম্যাগাজিন ও ২ টি তাজা গুলি উদ্ধার করে।

পরে দীর্ঘ সময় ধরে মামলার সাক্ষী ও প্রমাণাদি পর্যালোচনা করে আজ মঙ্গলবার লালমনিরহাটের বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক ও জেলা দায়রা জজ ও বিচারক মোঃ মিজানুর রহমান এই কারাদণ্ডাদেশ দেন। এছাড়াও প্রত্যেককে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাস কারাদন্ডাদেশ দেয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে লালমনিরহাট আদালতের পাবলিক প্রসিকিউট (পিপি) আকমল হোসেন বলেন, দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালতের বিজ্ঞ বিচারক এ আদেশ দিয়েছেন।

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন