শেষ পর্যন্ত গোসলখানায় ঢুকে পড়ল বখাটে, লজ্জায় কিশোরীর আত্মহত্যা

সূর্য্য চন্দ্র রায় ওরফে মটুরু। ঘরে স্ত্রী আছে, আছে দুটি সন্তান। এরপরও নিজের এলাকার অনেক নারীর সাথে সে মাঝেমধ্যেই অশালীন আচরণ করতো। এ নিয়ে একাধিকবার স্থানীয়ভাবে সালিশ বৈঠকও হয়েছে, কিন্তু বদলায়নি সে।

সর্বশেষ তার নজর পড়ে নিজ এলাকারই নবম শ্রেণি পড়ুয়া সুমি রাণী রায়ের (১৪) ওপর। সুমিকে দীর্ঘদিন ধরেই উত্তক্ত করে আসছিল সূর্য্য। বিষয়টি সুমির পরিবারের পক্ষ থেকে ওই যুবকের পরিবারকেও জানানো হয়েছিল কয়েক দফা। কিন্তু কোনো কাজ হয়নি। উল্টো সুমিকে উত্তক্তের ঘটনা আরো বেড়ে যায়।

সেই ধারাবাহিকতায় গত শনিবার বিকেলে নিজ বাড়ির গোসলখানায় সুমি যখন গোসল করছিল। তখন সেই বাড়িতে হাজির হয় সূর্য্য। এ সময় বাড়িতে পরিবারের আর কেউ ছিলেন না। এই সুযোগে সূর্য্য প্রথমে লুকিয়ে সুমির গোসলের দৃশ্য দেখতে থাকে। এক পর্যায়ে গোসলখানায় গিয়ে ওই স্কুল ছাত্রীকে জাপটে ধরে। এ সময় তাঁর চিৎকারে সম্পর্কের স্থানীয়রা ওই বাড়িতে হাজির হলে সূর্য্য পালিয়ে যায়।

এ ঘটনা জানাজানি হলে ওই বাড়িতে আশপাশের লোকজন এসে ভীড় করতে থাকেন। এরই এক পর্যায়ে নিজের সন্মান ও লোকলজ্জার ভয়ে সবার অজান্তে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঘরের ভেতর ফাঁসিতে ঝুলে পড়ে। ঘটনা টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে সৈয়দপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা সুমিকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাটি ঘটেছে নীলফামারীর সৈয়পুর উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের পশ্চিম লক্ষণপুর ভুজারীপাড়ায়। সুমি ওই এলাকার দিনমজুর হরেন চন্দ্র রায়ের মেয়ে। সে বাঙ্গালীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

আর একই এলাকার দিজেন চন্দ্র রায়ের ছেলে সূর্য্য চন্দ্র রায়। পুলিশ, নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

পুলিশ সুমির মরদেহ উদ্ধার করে রোববার, ৩ মার্চ ময়নাতদন্তের জন্য নীলফামারীর মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় গত শনিবার রাতে ওই স্কুল ছাত্রীর মা ময়না রানী সৈয়দপুর থানায় একটি মামলা করেছেন।

সৈয়দপুর থানার এসআই সাইদার রহমান জানান, স্কুল ছাত্রীর গলায় ফাঁস লাগানোর চিহ্ন রয়েছে।

বাঙ্গালীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নাজমুল হক জানান, মেয়েটি ক্লাসে খুব শান্ত-শিষ্ট এবং বেশ মেধাবী ছিল।

সৈয়দপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে বলেন, ‘ ঘটনাটি গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে।’

এদিকে সৈয়দপুর থানার ওসি (তদন্ত) নুরুজ্জামান বেগ জানান, পুলিশ অভিযুক্ত সূর্য্যকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

এবি/রাতদিন

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন