পাটগ্রামে নির্বাচনী সভায় হামলার অভিযোগে সড়ক অবরোধ

লালমনিরহাটের পাটগ্রামে স্বতন্ত্র প্রার্থী ওয়াজেদুল ইসলাম শাহীনের নির্বাচনী সভায় হামলার অভিযোগ এনে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে ওই প্রার্থীর সমর্থকরা। পরে প্রশাসনের আশ্বাসে ঘন্টা দেড়েক পর অবরোধ তুলে নেয়া হয়।

অবরোধের কারণে লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কের উভয় পাশে শতাধিক আমদানী-রফতানী পণ্যবাহি যানবাহন আটকা পড়ে। মঙ্গলবার, ৫ মার্চ রাতে এ ঘটনা ঘটে।

বুড়িমারীতে ওয়াজেদুল ইসলাম শাহীনের আনারস প্রতীকের নির্বাচনী সভায় নৌকার প্রার্থী রুহুল আমিন বাবুলের লোকজন হামলা চালিয়েছে বলে অবরোধ চলাকালে অভিযোগ করা হয়।

তবে পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ওই সভাকে ঘিরে বিকেল থেকে সেখানে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। পরে তা ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় রূপ নেয়।

ওয়াজেদুল ইসলাম শাহীন অভিযোগ করে বলেন, ‘জনগণের সমর্থন না পেয়ে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী রুহুল আমীন বাবুল হুমকি-ধামকি দিচ্ছে অব্যাহত ভাবে। এরই ধারবাহিকতায় নির্বাচনী সভায় হামলা চালানো হয়েছে। এতে আমার চারজন কর্মী আহত হয়েছেন।’

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে আ.লীগ প্রার্থী রুহুল আমিন বাবুল বলেন, ‘পাটগ্রাম থেকে লোক নিয়ে বুড়িমারীতে গিয়ে সেখানে থাকা আমার লোকজনের উপর হামলা চালিয়ে আমাদের সাতজনকে জখম করেছে।’

পাটগ্রাম থানার ওসি আরজু মো. সাজ্জাদ মঙ্গলবার রাতে জানান, পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে।

এইচএ/রাতদিন

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন