নীলফামারী থেকে ভারতের হলদিবাড়ি রেলপথ সম্প্রসারণ হবে : রেলপথমন্ত্রী

দেশের প্রত্যেক জেলায় রেলপথে যোগাযোগ স্থাপনসহ ভারত, মায়ানমার ও চীনের সাথেও রেল যোগাযোগ স্থাপন করা হবে।

২০৩০ সাল পর্যন্ত রেলওয়ের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে জানিয়ে রেলপথমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, ‘পঞ্চগড় থেকে বাংলাবান্ধা এবং চিলাহাটি থেকে ভারতের হলদিবাড়ি, কক্সবাজার থেকে মায়ানমার ও চীন পর্যন্ত রেললাইন সম্প্রসারণ করা হবে’।

তিনি বলেন, ‘খুব শিঘ্রই হাইস্পীড ট্রেন সার্ভিস চালু হবে’।

বুধবার, ২৩ জানুয়ারি পঞ্চগড় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে প্রশাসন ও রেলওয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা কাজের মাধ্যমে মানুষের আস্থা অর্জন করতে চাই’। রেল যোগাযোগে সরকারের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

এর আগে মতবিনিময় সভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ মুক্তিযুদ্ধ ও ভাষা আন্দোলনে শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন, লালমনিরহাট রেলওয়ে ডিভিশনের জেনারেল ম্যানেজার মিজানুর রহমান, পঞ্চগড়ের পুলিশ সুপার গিয়াস উদ্দিন আহমদ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এহেতেশাম রেজা ও পঞ্চগড় ১৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায় লে. কর্নেল মহিউস সুন্নাহ।

এছাড়াও সেখানে ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার সাদাত সম্রাট, পৌর মেয়র তৌহিদুল ইসলাম এবং বোদা পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট ওয়াহিদুজ্জামান সুজা।

দুপুরে পঞ্চগড় সরকারি অডিটোরিয়ামে জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ২২৯ জন শিক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষা ও সংস্কৃতি ট্রাস্টের প্রায় ৮ লাখ টাকা উপবৃত্তির চেক বিতরণ করেন মন্ত্রী।

বিকেলে নূরল ইসলাম সুজন পঞ্চগড় শেরে বাংলা পার্ক সংলগ্ন মুক্তমঞ্চে জেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

এইচএ/২৩.০১.১০

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন