লালমনিরহাটের ১ জনসহ ১৯ প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

লালমনিহাট সদর উপজেলায় নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ প্রার্থী মাসুমা ইয়াসমিন বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি ছাড়াও ৮৬ উপজেলায় প্রথম ধাপে বিভিন্ন পদে ১৮ জন বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ছিলো প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। ইসির সহকারী সচিব আশফাকুর রহমান আজ সাংবাদিকদের জানান, সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসার প্রথম ধাপে এ পর্যন্ত ১৯ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার তথ্য পাঠিয়েছেন।

এরমধ্যে চেয়ারম্যান ৭ জন, ভাইস চেয়ারম্যান ৫ জন ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান রয়েছেন ৭ জন।

নির্বাচিত চেয়ারম্যান জন হলেন:

পঞ্চগড়ের বোদা, নীলফামারী সদর, জয়পুরহাট সদর এবং জামালপুরের সদর উপজেলা,  সরিষাবাড়ি, মেলান্দহ ও মাদারগঞ্জ উপজেলায় একক প্রার্থী হওয়ায় চেয়ারম্যান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

ভাইস চেয়ারম্যান জন হলেন:

জামালপুরের সরিষাবাড়ি,  মেলান্দহ ও মাদারগঞ্জ; সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া ও শাহজাদপুর।

নারী ভাইস চেয়ারম্যান জন

লালমনিরহাট সদর, সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া ও শাহজাদপুর; নাটোর সদর. রাজশাহীর গোদাগাড়ী এবং জামালপুরের মেলান্দহ ও মাদারগঞ্জ।

ইসির সহকারী সচিব আশফাকুর রহমান জানান,প্রথম ধাপে ৮৬ উপজেলার মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী রয়েছেন ১০৬১ জন।

প্রথম ধাপে ১০ মার্চ ভোটের পর সবার ফল গেজেট আকারে প্রকাশ করবে ইসি।

তিনি আরও জানান, দ্বিতীয় ধাপেও ২৫ জন একক প্রার্থী রয়েছেন। বাছাই শেষে বৈধ প্রার্থী হলে তারা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হবেন।

সব ধরনের আনুষ্ঠানিকতা সেরে গেজেট প্রকাশের জন্য ইসির কাছে রিটার্নিং অফিসারের একীভূত তথ্য দেওয়া হবে বলে জানান আশফাকুর রহমান।

আরআই/রাতদিন

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন